মাশরাফীকে যে কারণে ফোন দিয়েছিলেন মুমিনুল

যদিও দুই দেশের সময়ের পার্থক্যের কারণে ফোন ধরতে পারেননি বলে জানিয়েছেন ম্যাশ। মিরপুরে বৃহস্পতিবার (৬ জানুয়ারি) গণমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে নড়াইল এক্সপ্রেস বলেন, মুমিনুল আমাকে ফোন দিয়েছিল। কিন্তু সময়ের পার্থক্যের কারণে কথা হয়নি। তবে আজ বলব। এ ছাড়া তিনি আরও বলেন, কথা বলাটা বড় ব্যাপার নয়। বড় বিষয় হচ্ছে, ওরা দেশকে গর্বিত করেছে, এটা আসল বিষয়।

ম্যাশ বলেন, ‘একটা দল হয়ে খেলার পুরস্কার পেয়েছে মুমিনুলরা। পর্যাপ্ত সুযোগ পেলে এবং আস্থা রাখলে যে ভালো পারফরম্যান্স সম্ভব সেটাই দেখিয়েছেন বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা।’ এ ছাড়া ঘরের মাঠে পেস বোলারদের আরো ভালো উইকেটে খেলার সুযোগ করে দেওয়ার আহ্বানও জানিয়েছেন তিনি।

তিনি বলেন, ‘ক্রিকেটারদের ওপর আস্থা রাখলে, পর্যাপ্ত সুযোগ দিলে তারা পারফর্ম করবে। এবাদত হোসেন দীর্ঘদিন সুযোগ পাওয়ার কারণেই এখন প্রতিদান দিচ্ছে। পেস বোলাররা টেস্ট ম্যাচ জিতিয়েছে, এটা বাংলাদেশের ক্রিকেটের জন্য বিশেষ কিছু। এখন তাদের দেশের ভেতরে আরও ভালো উইকেটে খেলার সুযোগ করে দিতে হবে।

আরও পড়ুন : শেষ টেস্ট খেলতে ক্রাইস্টচার্চে পৌঁছেছে বাংলাদেশ

ম্যাশ বলেন, এত সমালোচনা-আলোচনার পরও সবাই একটা দল হয়ে খেলতে পেরেছে, এ জন্যই নিউজিল্যান্ডে ফলাফল পক্ষে এসেছে। খালেদ মাহমুদ সুজন ক্রিকেটারদের জন্য সবসময় ইতিবাচক ভূমিকা রাখেন।

এদিকে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম টেস্টে ইতিহাস গড়া জয়ের পর সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট খেলতে মাউন্ট মঙ্গানুই থেকে ক্রাইস্টচার্চে পৌঁছেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল।

জানা গেছে, মুমিনুলরা বৃহস্পতিবার (৬ জানুয়ারি) সকালে ক্রাইস্টচার্চে পৌঁছায়। টিম টাইগার্সের কন্ডিশনিং কোচ নিক লি এক বার্তায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

প্রথম টেস্টে জয়ের পর থেকে বেশ ফুরফুরে মেজাজে আছেন ক্রিকেটাররা। বুধবার (৫ জানুয়ারি) সারা দিন উদযাপনেই কাটান সবাই। পরে, আজ সকালে দ্বিতীয় টেস্ট ভেন্যুর উদ্দেশে রওনা দিয়েছিলেন দলের সদস্যরা।

এর আগে পেসাররা হালকা জিম সেশনে অংশ নিলেও, বাকিরা ছিলেন বিশ্রামে। ক্রাইস্টচার্চে পৌঁছালেও বৃহস্পতিবারই মাঠে নামছেন না মুমিনুল-মুশফিকরা। শুক্রবার (৭ জানুয়ারি) থেকে শেষ টেস্টের জন্য প্রস্তুতি শুরু করবে টিম বাংলাদেশ।

এদিকে, মাহমুদুল হাসান জয়ের ইনজুরিতে কপাল খুলতে যাচ্ছে নাঈম শেখের। দ্বিতীয় টেস্টে অভিষেক হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে তার। সিরিজে এক শূন্যতে এগিয়ে থাকায় আত্মবিশ্বাস তুঙ্গে আছে ডমিঙ্গো বাহিনীর।

আরও পড়ুন : ইতিহাস গড়া মুমিনুলদের সুখবর দিল বিসিবি

টিম টাইগার্সের কন্ডিশনিং কোচ নিক লি বলেন, ‘আমরা আজ সকালে ক্রাইস্টচার্চে এসে পৌঁছেছি। ছেলেরা সবাই খুব ভালো মুডে আছে। বে ওভালের জয়টা আমাদের পুরো দলের চেহারাই বদলে দিয়েছে। সফরের শুরু থেকে আমরা বেশ চাপে ছিলাম। কোয়ারেন্টাইন নিয়ে দলের সবাই খুব দ্বিধায় ছিল। কিন্তু, এখন সব চেঞ্জ হয়ে গেছে। উইকেট এবং কন্ডিশন দেখে একাদশ নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। জয়ের এ টেস্টে খেলার সম্ভাবনা খুব কম। সেক্ষেত্রে আমরা বিকল্পও ভেবে রেখেছি।’

২০১৯ সালে এই ক্রাইস্টচার্চেরই একটি মসজিদে সন্ত্রাসী হামলার পর সফর স্থগিত করেই ফিরতে হয়েছিল তামিম-মুশফিকদের। ওই সফরে তৃতীয় ও শেষ টেস্ট না খেলেই সিরিজের মাঝপথে দেশে ফিরে আসে বাংলাদেশ। অবশেষে সেই ক্রাইস্টচার্চেই আবারও খেলতে গেল মুমিনুলরা। যদিও এর আগে গত বছরও সেখানে আরেকবার সফর করেছিল।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*