অসহায়দের বিনামূল্যে খাবার দেই, বিনিময়ে ভালোবাসা-দোয়া পাই’

অসহায় ও ক্ষুধার্তদের বিন্যামূল্যে খাবার দিয়ে থাকে কুয়েতের অনেক হোটেল-রেস্তোরাঁ। যাদের খাবার কেনার সামর্থ্য নেয় তারা হোটেলে কর্মরতদের জানালেই খাবার ও রুটি পান।

এমনি এক রেস্তোরাঁয় কর্মরত আছেন আবু আহমেদ। তিনি বলেন, আমরা অসহায়-ক্ষুধার্তদের বিনামূল্যে খাবার দিয়ে থাকি। আর বিনিময়ে আমরা ভালোবাসা ও দোয়া পাই।

তিনি আরও বলেন, যাদের খাবার কিনে খাওয়ার সামর্থ্য নেই তারা আমাদের রেস্তোরাঁয় আসে এবং আমরা তাদের খাবার পরিবেশন করি। আমরা তাদের এমনভাবে গুরুত্ব দেই যাতে তিনি একজন অর্থপ্রদানকারী গ্রাহক। আমরা তাদের অর্ডার দ্রুত প্রস্তুত করি এবং অর্থ ছাড়াই প্রদান করি।

কুয়েতের বিভিন্ন এলাকায় অসহায়দের বিনামূল্যে খাবার পরিবেশন করা হয়। কুয়েতে কেউ ক্ষুধার্ত থাকে না। এই রেস্তোরাঁগুলো দাতব্য হিসেবে যার যার প্রয়োজন মেটায়।

হোটেল-রেস্তোরাঁর পাশাপাশি বেকারিগুলোও বিনামূল্যে রুটি সরবরাহ করে থাকে। সাধারণত শীতে সকালের ক্লিনাররা গরম রুটির জন্য বেকারির সামনে সারিবদ্ধ হন। এরপর মালিকরা তাদের বিনামূল্যে রুটি সরবরাহ করেন।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*