ভারতের অরুণাচলের ১৫টি স্থানের নতুন নাম দিল চীন

অরুণাচল প্রদেশের কিছু স্থানের নতুন করে নামকরণ করেছে চীন। নয়াদিল্লি এর কঠোর প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে। বেইজিংয়ের এ পদক্ষেপের তীব্র নিন্দা জানিয়ে ভারত বলেছে, অরুণাচল ভারতের প্রদেশ ছিল এবং থাকবে। নাম পরিবর্তন করে এ সত্য কখনো বদলে দেওয়া যাবে না। খবর এনডিটিভি অনলাইন।

বেইজিং অরুণাচল প্রদেশের ১৫টি স্থানের নতুন করে নামকরণের পর ভারত এমন প্রতিক্রিয়া জানাল। অরুণাচলকে দক্ষিণ তিব্বতের অংশ মনে করে চীন।

ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র অরিন্দম বাগচি বলেছেন, ‘আমরা আগেও এমনটা দেখেছি। চীনের অরুণাচল প্রদেশের কোনো স্থানের নতুন নামকরণের ঘটনা এটাই প্রথম নয়; ২০১৭ সালের এপ্রিলেও চীন এভাবে অরুণাচল প্রদেশের কিছু স্থানের নতুন করে নামকরণ করেছিল।’

অরিন্দম বাগচি আরও বলেন, ‘অরুণাচল প্রদেশ ভারতের অবিচ্ছেদ্য অংশ ছিল এবং থাকবে। অরুণাচলের নতুন নামকরণে সত্যটা বদলে যাবে না।’

চীন অরুণাচল প্রদেশের কিছু স্থানের নাম বদলে নিজেদের ভাষায় নামকরণ করেছে—সাংবাদিকেরা এ নিয়ে জানতে চাইলে অরিন্দম বাগচি এসব কথা বলেন।
চীনের রাষ্ট্রায়ত্ত দৈনিক গ্লোবাল টাইমস এ নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। তাতে বলা হচ্ছে, চীনের বেসামরিক–বিষয়ক মন্ত্রণালয় গত বুধবার ঘোষণা দিয়ে জানায়, তারা চীনা অক্ষর, তিব্বতি ও রোমান বর্ণমালায় জাংনানের ১৫টি স্থানের মানসম্মত নাম দিয়েছে। জাংনান হলো অরুণাচল প্রদেশের চীনা নাম।

গ্লোবাল টাইমসের প্রতিবেদন অনুযায়ী, চীনের স্টেট কাউন্সিল ও মন্ত্রিসভা কর্তৃক জারি করা ভৌগোলিক নামের প্রবিধান অনুসারে নতুন নামকরণ করা হয়েছে।
চীন ভারতের অরুণাচল প্রদেশের যে ১৫টি স্থানের নতুন নামকরণ করেছে, এর মধ্যে ৮টি আবাসিক এলাকা, ৪টি পাহাড়, ২টি নদী ও ১টি পাহাড়ি পথ।

এ নিয়ে দ্বিতীয়বার অরুণাচল প্রদেশের বিভিন্ন স্থানের নামকরণ করল চীন। এর আগে ২০১৬ সালে প্রদেশটির ছয়টি স্থানের নতুন নামকরণ করেছিল বেইজিং।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*