জাতীয় পার্টি আজ নতুন করে জেগে উঠেছে: সালমা ইসলাম এমপি

জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ও প্রয়াত সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদকে গভীর শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করে সাবেক প্রতিমন্ত্রী ও দলটির কো-চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এমপি বলেছেন, আজ থেকে ৩৫ বছর আগে দেশের মানুষের কল্যাণের কথা মাথায় রেখে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ জাতীয় পার্টি প্রতিষ্ঠা করেন। ঔপনিবেশিক শাসনামলের শৃঙ্খল ভেঙে তিনি একটি আধুনিক বাংলাদেশ উপহার দিয়েছিলেন। তাই আজও কোটি মানুষের হৃদয়ের মণিকোঠায় বেঁচে আছেন হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ।

শনিবার রাজধানীর রমনায় ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে জাতীয় পার্টির ৩৬তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

সালমা ইসলাম এমপি বলেন, নানান বাধা বিপত্তি উপেক্ষা করে জাতীয় পার্টি আজও এগিয়ে যাচ্ছে। হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের যোগ্য উত্তরসূরি বর্তমান চেয়ারম্যান জিএম কাদের এখন জাতীয় পার্টির পতাকা বহন করে পথ চলছেন। তার নেতৃত্বে জাতীয় পার্টি অনেক বেশি সুসংগঠিত এবং শক্তিশালী। জাতীয় পার্টি আজ নতুন করে জেগে উঠেছে। নতুন শক্তি দিয়ে পথ চলা শুরু করেছে। নেতাকর্মীদের মঝেও নতুন করে প্রাণ ফিরে এসেছে।

অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম আরও বলেন, জাতীয় পার্টি গণমানুষের দল। মানুষের কল্যাণের জন্য রাজনীতি করতেই জাতীয় পার্টির জন্ম। সব ষড়যন্ত্র মোকাবিলা করে গঠনমূলক রাজনীতি করে যাচ্ছে জাতীয় পার্টি। দেশের মানুষও তাই আগামীতে আবার জাতীয় পার্টির শাসনামলের সেই স্বর্ণালী যুগে ফিরে যেতে চায়। জাতীয় পার্টিকে আবার ক্ষমতায় দেখতে চায়। আর মানুষের এই স্বপ্ন পূরণের জন্য প্রয়োজন নেতাকর্মীদের মধ্যে ইস্পাত কঠিন ঐক্য। তিনি এ সময় ব্যাংককে চিকিৎসাধীন বিরোধীদলীয় নেতা ও জাতীয় পার্টির প্রধান পৃষ্ঠপোষক রওশন এরশাদের রোগমুক্তি কামনায় নেতাকর্মীসহ দেশবাসীর কাছে দোয়া কামনা করেন।

জাতীয় সংসদের প্রধান বিরোধীদল জাতীয় পার্টির ৩৬তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে মূলক এই সমাবেশের আয়োজন করা হয়।

বিকাল ৩টায় রমনায় ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা আয়োজন করা হয়। আলোচনা সভা শেষে একই স্থানে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়া এবং যুগ্ম মহাসচিব গোলাম মোহাম্মদ রাজুর সঞ্চালনায় সভায় আরও বক্তব্য দেন- জাতীয় পার্টির সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ এমপি, জাতীয় পার্টি মহাসচিব মো. মুজিবুল হক চুন্নু এমপি, কো-চেয়ারম্যান এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার, কো-চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট কাজী ফিরোজ রশীদ এমপি, কো-চেয়ারম্যান সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা এমপি, জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য সাহিদুর রহমান টেপা, শেখ মুহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম, মীর আব্দুস সবুর আসুদ, হাজী সাইফুদ্দিন আহমেদ মিলন, লিয়াকত হোসেন খোকা এমপি, চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা শেরীফা কাদের এমপি, জহিরুল আলম রুবেল, ভাইস-চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম পাঠান, জাতীয় যুব সংহতির আহ্বায়ক এইচএম শাহরিয়ার আসিফ, জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টির সাধারণ সম্পাদক মো. বেলাল হোসেন, জাতীয় শ্রমিক পার্টির সাধারণ সম্পাদক মো. জাহাঙ্গীর হোসেন, জাতীয় ছাত্র সমাজের সভাপতি ইব্রাহিম খান জুয়েল।

উপস্থিত ছিলেন- প্রেসিডিয়াম সদস্য সুনীল শুভ রায়, নাজমা আক্তার এমপি, আলমগীর সিকদার লোটন, মেজর (অব.) রানা মো. সোহেল এমপি, উপদেষ্টা রওশন আরা মান্নান এমপি, এমএ কুদ্দুস, নুরুল ইসলাম মিলন, ড. নূরুল আজহার শামীম, মনিরুল ইসলাম মিলন, মেহজাবিন মোর্শেদ ইব্রাহিম, নাজনীন সুলতানা, হেনা খান পন্নী, ইসরাফিল খোকন, আমানত হোসেন আমানত, লাকি বেগম, ইন্জিনিয়ার মো. সিরাজুল হক, ডা. রুস্তম আলী ফরাজী এমপি।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*