জিনিসপত্রের দাম সহনীয় পর্যায়ে আছে: অর্থমন্ত্রী

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, দেশে কোনো মূল্যস্ফীতি নেই, জিনিসপত্রের দাম সহনীয় পর্যায়ে আছে।

নিত্যপণ্যের দাম ঊর্ধ্বমুখী নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রী বলেন, মূল্যস্ফীতি সারাবিশ্বে আছে। আমাদের এখানে নাই। কিন্তু জিনিসপত্রের দাম বাড়লেও কম বাড়ছে; সহনীয় পর্যায়ে আছে।

অন্য কোনো দেশের সঙ্গে মেলালে দেখবেন এখন মূল্যস্ফীতিতে বাংলাদেশ ভালো অবস্থানে আছে। আমরা গত ১৫ বছর ধরে আমাদের ৫ থেকে সাড়ে ৫ শতাংশ মূল্যস্ফীতির রেট। পৃথিবীর কোনো দেশ এমন খুঁজে পাওয়া যাবে না, এটি একটি অসাধারণ দেশ।

শনিবার (১ জানুয়ারি) জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের বাংলাদেশকে ‘স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উত্তরণ’ সম্পর্কিত চূড়ান্ত সুপারিশের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকায় স্মারক অনুষ্ঠানের প্রি-ইভেন্ট প্রেস ব্রিফিংকালে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এমন দাবি করেন।

তিনি বলেন, আমাদের সক্ষমতা বেড়েছে, এ দেশের মানুষের দক্ষতা বেড়েছে, উৎপাদনশীলতা বেড়েছে। আমাদের আশপাশের দেশ দেখেন, তাদের যে অবস্থান সেটি আমরা দখল করে নিচ্ছি। আমরা চ্যালেঞ্জগুলো ভালোভাবেই নিই, এগুলো উত্তরণে আমরা ফ্লেক্সিবল অ্যাপ্রোচে আছি।

আমরা চ্যালেঞ্জগুলোকে সুযোগ হিসেবে কাজে লাগাতে চাই। অতীতেও আমরা এতে সফলতা পেয়েছি। আগামীতেও এটাকে ব্যাপকভাবে কাজে লাগাবো। আমাদের রপ্তানি বাণিজ্য ৪৫ বিলিয়ন ডলারের কাছাকাছি। আমরা ৬০ বিলিয়নে যাবো। আমাদের রফতানিও কমবে না কিছুই কমবে না। আমাদের হোঁচট খেতে হবে না এবং আমরা ক্ষতিগ্রস্ত হবো না।

জ্বালানির দাম বাড়ানো সঠিক ছিল কিনা জানতে চাইলে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেন, অর্থমন্ত্রী হিসেবে আমি নিজের কাজ নিজে করি না, আপনাদের (মিডিয়া) থেকে সাহায্য সহযোগিতা নিয়ে আপনাদের মতামত নিয়ে আমরা কাজ করি। এটি নিয়ে আমাদের সরকারের সংশ্লিষ্ট যারা কাজ করেন তারা বিষয়টি দেখবেন। আমি অর্থমন্ত্রী হলেও সব বিষয়ে আমি হস্তক্ষেপ করি না, সব বিষয় দেখি না। আমার যে অংশটুকু সেটুকু নিয়ে আমি নিয়োজিত থাকি। এ বিষয়টি যারা বিবেচনা করার তারা দেখবেন কী করা যায়। প্রেস ব্রিফিংয়ে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের সচিব ফাতিমা ইয়াসমিন বক্তব্য রাখেন।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*