ইউপি নির্বাচন: অবশেষে চেয়ারম্যান পদে ছেলের প্রতি বাবার সমর্থন

রাজবাড়ীতে পঞ্চম ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে পাংশা উপজেলার ১০ টি ইউনিয়নে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। আগামী ৫ জানুয়ারী সকাল ৮টা থেকে বিকেলে ৪টা পর্যন্ত এই ভোটগ্রহণ চলবে। ১০টি ইউনিয়নের মধ্যে পাংশার যশাই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদে বাবা-ছেলে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে শুরুতেই আলোচনায় আসে। এ নিয়ে এলাকায় নানা গুঞ্জন শুরু হলেও পরে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আবু হোসেনের প্রতি সমর্থন দিয়েছেন যশাই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও সাবেক চেয়ারম্যান পিতা আব্দুল হাকিম খান।

আজ রবিবার সকালে মুঠোফোনে এ তথ্য নিশ্চিত করে আব্দুল হাকিম খান বলেন, আমাকে দলীয় মনোনয়ন দেওয়া হয়নি। আমি আমার জনপ্রিয়তা বোঝানোর জন্য প্রার্থী হয়েছিলাম। পরে তারুণ্যের ক্ষমতা, দল ও পরিবারের সাথে আলোচনা করে আমি পাংশা উপজেলা আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ও স্থানীয় বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আমার ছেলেকে সমর্থন দিয়েছি। আমি এখন ছেলের জয়ের জন্য বিভিন্ন স্থানে তার পক্ষে ভোট চাচ্ছি। বাবা-ছেলে এক হওয়ার কারণে আমাদের জয় এখন সময়ের ব্যাপার বলে দাবি করেন তিনি।

আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আবু হোসেন বলেন, আমার বাবা হাজী আব্দুল হাকিম খান সাবেক জনপ্রিয় চেয়ারম্যান ছিলেন। তিনি এবার চেয়ারম্যান হতে চেয়েছিলেন। স্থানীয় আওয়ামী লীগ আমার বাবার সাথে আলোচনা করেই আমার নাম কেন্দ্রে প্রেরণ করে। আমি আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাই। নির্বাচনে একটি পক্ষ তার আবেগকে কাজে লাগিয়ে প্রার্থী করেছিল। পরে তিনি বিষয়টি বুঝতে পেরেছেন। তিনি আমার জয়ের জন্য কাজ করছেন।
পাংশা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল ওহাব মন্ডল বলেন, যশাই ইউনিয়নে বাবা-ছেলে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী ছিলেন। এক সপ্তাহ পূর্বে আমরা সেটির সমাধান করেছি। বাবা ছেলেকে সমর্থন দিয়েছেন। যশাই ইউনিয়নে আমাদের আওয়ামী লীগের প্রার্থী আবু হোসেনের অবস্থা ভালো। তিনি জয়লাভ করবেন।

যশাই ইউনিয়নের দায়িত্বপ্রাপ্ত রিটার্নিং অফিসার ও উপজেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা ডা. প্রভাস চন্দ্র সেন বলেন, যশাই ইউনিয়নে এবারের নির্বাচনে বড় ধরনের কোন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। নির্বাচনে শরিফুল ইসলাম তার মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহার করার কারণে আমার দপ্তরের তথ্য মতে বর্তমানে ৫জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

তিনি আরও জানান, বাবা ছেলে ছাড়াও এই ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে খোন্দকার তফাজ্জেল হোসেন স্বতন্ত্র, মামুন জাকের পার্টি, মো. সিদ্দিকুর রহমান স্বতন্ত্র, মো. সিরাজুল ইসলাম স্বতন্ত্র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। যশাই ইউনিয়নে ৯টি ভোটকেন্দ্রে ১৪ হাজার ৮৬৪ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*