নেতা হতে চেয়ো না, তরুণদের ইলন মাস্ক

ইলেকট্রিক গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান টেসলা ও মহাকাশ সংস্থা স্পেসএক্সের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ইলন মাস্ক গোটা বিশ্বের তরুণদের জন্য একটি অনুপ্রেরণার নাম। কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা গবেষক লেক্স ফ্রিডম্যানকে সম্প্রতি সাক্ষাৎকার দিয়েছেন তিনি। সেখানেই শিক্ষার্থীদের কিছু পরামর্শ দেন তিনি। ইলন মাস্কের পরামর্শ হলো, বেশি বেশি বই পড়তে হবে আর নেতা হওয়ার প্রবণতা থেকে দূরে থেকে মানুষের সাহায্যে কাজ করতে হবে। খবর ইকোনমিক টাইমস অনলাইনের।

বিজ্ঞাপন

বড় কিছু করতে চান, এমন তরুণদের কী পরামর্শ দেবেন—এমন প্রশ্নের জবাবে ইলন মাস্ক বলেন, মানুষের কাজে লাগে, এমন কিছু করার চেষ্টা করতে হবে।

বিশ্বের কাজে লাগে—তরুণদের এমন কিছুই করা উচিত বলে মনে করেন ইলন মাস্ক। তিনি বলেন, মানুষের কাজে লাগবে—এমন কিছু করাটা অবশ্য খুব কঠিন। পৃথিবীর যা কিছু ভোগ করা হয়, তার চেয়েও বেশি অবদান রাখতে তরুণদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন সফল এই প্রযুক্তি উদ্যোক্তা। তিনি শিক্ষার্থীদের বেশি বই পড়তে ও তাদের সাধারণ জ্ঞানের বিকাশ ঘটানোর পরামর্শ দিয়েছেন, যাতে বিশ্বজুড়ে কী ঘটছে, তা জানতে পারেন তাঁরা।

বিজ্ঞাপন

মাস্ক আরও উল্লেখ করেন, ‘আপনি গোটা বিশ্বের বিভিন্ন ধরনের মানুষের সঙ্গে যত বেশি কথা বলবেন ও মেলামেশা করবেন, তত বেশি আপনার মন মুক্ত হবে।’

একজন সফল উদ্যোক্তা হতে বিশ্বের শীর্ষ ধনীর পরামর্শ, সমাজের বিভিন্ন স্তরের, বিভিন্ন শিল্প, পেশা, বিশেষভাবে দক্ষ মানুষদের সঙ্গে কথা বলুন। ২০১৪ সালে এক সাক্ষাৎকারে মাস্ক বলেন, তিনি সম্ভাব্য একজন কর্মীর মধ্যে মর্যাদাপূর্ণ বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিগ্রির পরিবর্তে অসাধারণ দক্ষতার প্রমাণ খুঁজছেন। গাড়িবিষয়ক জার্মান প্রকাশনা অটো বিল্ডকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে কর্মীদের সম্পর্কে ইলন বলেন, কলেজ ডিগ্রি, এমনকি স্কুল সার্টিফিকেটেরও প্রয়োজন নেই।

বিজ্ঞাপন

মাস্ক বলেন, ‘মহান কোনো বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক হলে মহান কিছু করার সামর্থ্য তৈরি হয়। কিন্তু এটাও আবশ্যক নয়। বিল গেটস, ল্যারি এলিসন, স্টিভ জবসের মতো মানুষদের দেখেন, তাঁদের কেউই কলেজ ডিগ্রি নেননি। কিন্তু আপনি যদি তাঁদের নিয়োগ দেওয়ার সুযোগ পান, তাহলে এটা অবশ্যই একটা ভালো ব্যাপার।’

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*