ভাড়া না পেয়ে ভাড়াটেকে আটক, ধৃত বাড়িওয়ালার ছেলে

বেতন আটকে যাওয়ার ফলে সময়মতো ভাড়া দিতে না পারায় ভাড়াটেকে সারা দিন ঘরে আটকে রাখার অভিযোগ উঠল বাড়িওয়ালা ও তার ছেলের বিরুদ্ধে। মঙ্গলবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে সোনারপুর থানার পূর্ব ঘোষপাড়া এলাকায়। পুলিশ জানিয়েছে, এই ঘটনায় বাড়িওয়ালার ছেলে বাবুসোনা হালদারকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রের খবর, বিকাশ দাস নামে এক ব্যক্তি মাস চারেক আগে পূর্ব ঘোষপাড়ায় একটি ঘর ভাড়া নিয়েছিলেন। তিনি ওই অঞ্চলেরই সাহেবপাড়া এলাকার একটি পার্লারে কাজ করেন। করোনার বিধিনিষেধের জেরে গত সোমবার থেকে সেই পার্লার বন্ধ হয়ে যায়। বিকাশ জানিয়েছেন, প্রতি মাসের ৩ তারিখ ভাড়া দেন তিনি। কিন্তু আচমকা পার্লার বন্ধ হয়ে যাওয়ায় সময়মতো বেতন হয়নি তাঁর।

Advertisement
৪ জানুয়ারি, অর্থাৎ মঙ্গলবার সকালে বাড়িওয়ালা মোহন হালদার ও তার ছেলে বাবুসোনা ভাড়ার টাকা নিতে আসে। কিন্তু বেতন না পাওয়ায় বিকাশ তাঁদের জানান, ভাড়া দিতে কয়েক দিন দেরি হবে। অভিযোগ, সে কথা শোনার পরেই বিকাশকে ঘরে তালাবন্ধ করে আটকে রাখা হয়। বিকেল পর্যন্ত বাড়িওয়ালাকে অনেক অনুরোধ করেও প্রতিকার না হওয়ায় বিকাশ তাঁর মালিক পলাশ দাসকে ফোন করে বিষয়টি জানান। পলাশবাবু সোনারপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। এর পরে পুলিশ সেখানে পৌঁছে রাত আটটা নাগাদ ঘরের দরজা ভেঙে বিকাশকে উদ্ধার করে। তাঁর অভিযোগের ভিত্তিতে রাতেই বাবুসোনাকে গ্রেফতার করা হয়।

পলাশবাবু বলেন, ‘‘মাসিক ভাড়া ৪২০০ টাকা। একটিমাত্র ঘর। শৌচালয় ঘরের বাইরে। ভাড়া দিতে না পারায় প্রায় আট ঘণ্টা এক জনকে অমানবিক ভাবে আটকে রাখা হল! খাবার বা জলটুকুও দেওয়া হয়নি। এমনকি, শৌচাগারেও যেতে দেওয়া হয়নি। এরা কি মানুষ! পুলিশের সাহায্যে বিকাশকে উদ্ধার করা হয়েছে।’’

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*